২০১৫ বিশ্বকাপের ফাইনালেও হয়েছিল বল টেম্পারিং?

কেপটাউন টেস্টে বল বিকৃতি-কাণ্ডে জেরবার অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেট। স্টিভ স্মিথরা ব্যাপারটা স্বীকার করে নেওয়ার পর অনেকেই নড়েচড়ে বসেছেন। অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেটাররা যে এর আগেও বল বিকৃতি করেননি, তার কী নিশ্চয়তা! নিউজিল্যান্ডের সাবেক অলরাউন্ডার গ্র্যান্ট এলিয়ট ঠিক এ প্রশ্নই তুলেছেন। তাঁর ধারণা, ২০১৫ বিশ্বকাপ ফাইনালেও অস্ট্রেলিয়া বল বিকৃতি করেছে!

অভিযোগের পক্ষে কোনো প্রমাণ দেখাতে পারেননি এলিয়ট। গত বিশ্বকাপ ফাইনালে নিউজিল্যান্ডের ইনিংসে সর্বোচ্চ ৮৩ রান করেছিলেন তিনি। সে ম্যাচে ৩৫ ওভার শেষে নিউজিল্যান্ডের স্কোর ছিল ৩ উইকেটে ১৫০। বাকি ৩৩ রান তুলতেই শেষ ৭ উইকেট হারিয়েছিল কিউইরা। এর মধ্যে ৬ উইকেট ভাগ করে নেন মাইকেল ক্লার্কের দলের তিন পেসার—জেমস ফকনার, মিচেল জনসন ও মিচেল স্টার্ক। ১৮৩ তাড়া করতে নেমে ক্লার্ক ও স্মিথের ফিফটিতে অনায়াসে জয় তুলে নেয় অস্ট্রেলিয়া।

এলিয়ট নিউজিল্যান্ডের ইনিংসে সেই মড়ক লাগার মুহূর্তটি নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন। দেশের এক রেডিও অনুষ্ঠানে তাঁর বক্তব্য, ‘প্রথম প্রশ্ন, বিশ্বকাপ ফাইনালে কী ঘটেছিল? তাঁরা (অস্ট্রেলিয়া) কি সেখানেও এটা করেছিল? আমরা ৩ উইকেটে ১৫০ রান নিয়ে একপর্যায়ে ভালো অবস্থানে ছিলাম। কিন্তু তারপর কোনো ব্যাখ্যা নেই। প্রশ্নটা তাই উঠতেই পারে।’

স্মিথদের বল বিকৃতি-কাণ্ডের পর কিছু বোলারের ওপর যে শ্যেন দৃষ্টি রাখা হবে, সেটাও স্মরণ করিয়ে দিলেন এলিয়ট, ‘কিছু বোলারের ওপর নজর রাখা হবে, তারা আসলেই ভালো বোলার নাকি বল বিকৃতি করছে, সেটা বোঝার জন্য।’

Add a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *