স্মিথদের অভাব ভালোভাবেই টের পেয়েছে অস্ট্রেলিয়া

পুরো টপ অর্ডার পাল্টে জোহানেসবার্গে নামতে হয়েছে অস্ট্রেলিয়াকে। বল টেম্পারিংয়ে বাদ পড়েছেন তিনজন। তাঁদের জায়গা নিয়েছেন নতুন তিন। ডেভিড ওয়ার্নারের বদলি জো বার্নস, ক্যামেরন ব্যানক্রফটের জায়গায় ম্যাট রেনশ। আর টেস্টের সেরা ব্যাটসম্যান স্টিভ স্মিথের ভার নিতে হয়েছে পিটার হ্যান্ডসকম্বকে!

প্রথম দুজন তবু ৪-এর নামতা পড়ে ৪ ও ৮ করেছেন। হ্যান্ডসকম্ব ফিরেছেন একেবারে শূন্য হাতে, গোল্ডেন ডাক! প্রথম চারের তিনজনের এমন ভয়াবহ ব্যাটিং ঢাকতে পারেননি উসমান খাজাও। ফলে চতুর্থ টেস্টের দ্বিতীয় দিনটা অস্ট্রেলিয়া এগিয়েছে ধুঁকে ধুঁকে। ৬ উইকেতে ১১০ রান করে এখনো ৩৭৮ রানে পিছিয়ে সফরকারীরা।
৩৮ রানে ৩ উইকেট হারিয়ে শুরুতেই কোমর ভেঙেছে অস্ট্রেলিয়ার ইনিংসের! চতুর্থ উইকেটে শন মার্শকে নিয়ে খাজা একটু চেষ্টা করেছিলেন। ৫২ রানের জুটি গড়ে খাজা আউট হতেই আরেকটি ধস। ৬ রানের মধ্যে নেই ৩ উইকেট। সর্বোচ্চ স্কোরার খাজার (৫৩) দেখাদেখি ড্রেসিং রুমে ফিরেছেন দুই মার্শ। ৭৪ বলে ১৬ রান করে শন তবু প্রতিরোধ গড়ার ইঙ্গিত দিয়েছিলেন। মরনে মরকেলের বলে বোল্ড হওয়ার আগে মাত্র ৪ রান করতে পেরেছেন। হঠাৎ করেই দলের অধিনায়ক বনে যাওয়া টিম পেইনকে (৫*) আগামীকাল কঠিন পরীক্ষা দিতে হবে। তাঁর সঙ্গী বোলিংয়ে ৫ উইকেট পাওয়া প্যাট কামিন্স (৭*)। ১৭ রান নিয়ে ৩ উইকেট পেয়েছেন ভারনন ফিল্যান্ডার।
এর আগে টেম্বা বাভুমার দৃঢ়তায় ৪৮৮ রানের স্কোর পেয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা। সঙ্গীর অভাবে ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় টেস্ট সেঞ্চুরিটা পাননি, মাঠ ছেড়েছেন অপরাজিত ৯৫ রানে। এ ছাড়া আর বাকি সবই করেছেন। ডি ভিলিয়ার্সকে নিয়ে পঞ্চম উইকেটে ৫২ রান, কুইন্টন ডি কককে নিয়ে সপ্তম উইকেটে ৮৫ ও নবম উইকেটে কেশব মহারাজের সঙ্গে ৭৬ রান যোগ করে অস্ট্রেলিয়াকে ভুলে যাওয়ার মতো এক দিন উপহার দিয়েছেন বাভুমা!

Add a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *