মেয়ের পছন্দ বীজগণিত, মায়ের পাটিগণিত

0
193

১. গণিতের কোন বিষয়টা ভালো লাগে?
পুষ্পিতা: বীজগণিত ও সংখ্যাতত্ত্ব।
মা: পাটিগণিত।
২. গণিতের কোন বিষয়টা কঠিন মনে হয়?
পুষ্পিতা: গণিতে আমার সবকিছুই ভালো লাগে। প্রতিটা বিষয় দক্ষতার পার্থক্য থাকলেও সব ভালো।
মা: বীজগণিত আমার কাছে কঠিন লাগত।
৩. প্রিয় শিক্ষক?
পুষ্পিতা: ভিকারুননিসা স্কুলের মো. মহসিন তালুকদার, আর স্কুলের বাইরে মোহাম্মাদ কায়কোবাদ।
মা: প্রাথমিক স্কুলের শিক্ষক তোফাজ্জেল স্যার এবং হাইস্কুলের নার্গিস ম্যাডামকে খুব ভালো লাগত।
৪. কোন ধরনের বই পড়তে ভালো লাগে?
পুষ্পিতা: যেকোনো গণিতের বই। তবে প্রিয় বই আলেক্সান্ডার বেলায়েভের উভচর মানুষ।
মা: শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের বই।
৫. প্রিয় লেখক?
পুষ্পিতা: সত্যজিৎ রায়।
মা: হুমায়ূন আহমেদ, শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়।
৬. প্রিয় সিনেমা?
পুষ্পিতা: অ্যানিমেটেড সিনেমা মোয়ানা।
মা: আয়নাবাজি।
৭. কী খাবার খেতে ভালো লাগে?
পুষ্পিতা: মায়ের হাতে যেকোনো খাবার।
মা: ভাজাপোড়া খাবার।
৮. বেড়ানোর জন্য প্রিয় জায়গা?
পুষ্পিতা: আমি চীনের মহাপ্রাচীর দেখেছি। এটি আমার কাছে খুবই ভালো লেগেছে।
মা: কক্সবাজার ও সিলেট।
৯. প্রিয় পোশাক?
পুষ্পিতা: সালোয়ার-কামিজ।
মা: শাড়ি।
১০. প্রিয় রং?
পুষ্পিতা: সাদা-কালো।
মা: কালো আর হালকা গোলাপি।
১১. প্রিয় ফুল?
পুষ্পিতা: গ্লাডিয়াস ফুল।
মা: গোলাপ।
১২. প্রিয় খেলোয়াড়?
পুষ্পিতা: বক্সার মেরি কম।
মা: ক্রিকেটার সাকিব আল হাসান।
১৩. অবসরে কী করেন?
পুষ্পিতা: অবসরে গণিত ও বিজ্ঞানের সমস্যা সমাধান করি। নতুন নতুন সমস্যা তৈরি করি।
মা: অবসরে চিন্তা করি ছেলেমেয়েদের কী লাগবে।
১৪. পরস্পরের যা ভালো ও খারাপ লাগে?
পুষ্পিতা: মা আমাদের আদর্শ মানুষ হিসেবে গড়ে তোলার চেষ্টা করেছেন। মায়ের কোনো ভুল এখন পর্যন্ত আমার চোখে ধরা পড়েনি। খুবই যত্নশীল।
মা: ওর কোনো খারাপ দিন আমার চোখে পড়েনি। খুবই নীতিমান, সত্য কথা বলে। কিন্তু মাঝেমধ্যে বইপত্র তেমন গুছিয়ে রাখে না।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here